Revolutionary democratic transformation towards socialism

সরকারের দক্ষিণপন্থী পশ্চাদপসরণ সমাজ ও রাষ্ট্রকে ভয়াবহ বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দিচ্ছে - সিপিবি


কমরেড শাহ আলম
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র দু’দিনব্যাপী কেন্দ্রীয় কমিটির সভা গতকাল সমাপ্ত হয়েছে। ২৬ ও ২৭ মে অনুষ্ঠিত এ সভায় পার্টি সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে সাংগঠনিক রিপোর্ট ও রাজনৈতিক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয় এবং গৃহীত হয়। সভায় রাজনৈতিক প্রস্তাব উত্থাপন করেন সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ। রাজনৈতিক প্রস্তাবে বর্তমান সরকারের দক্ষিণপন্থী

কমরেড সাজ্জাদ জহির চন্দন
সাম্প্রদায়িক শক্তির কাছে নতি স্বীকারের প্রতি দিকনির্দেশ করে বলা হয় সরকার হেফাজতে ইসলামের চিঠির প্রেক্ষিতে পাঠ্যপুস্তক থেকে প্রগতিশীল ও অমুসলিম লেখকদের লেখা বাদ দিয়েছে। হেফাজতের দাবির কারণে কওমী মাদ্রাসার ডিগ্রিকে মাস্টার্সের সমমর্যাদা দিয়েছে। সর্বশেষে হেফাজতের হুমকির মুখে হাইকোর্টের সামনে স্থাপিত ভাস্কর্য অপসারণ করেছে। এটি হেফাজতের কাছে সরকারের

কমরেড আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন
নতি স্বীকার। এ নতি স্বীকার সমাজ ও রাষ্ট্রকে ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। প্রস্তাবে সরকারের এ পশ্চাদপসরণ রুখে দিতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান হয়। প্রস্তাবে হাওর অঞ্চলে জলমহালের ইজারা বাতিল করে ভাসান পানিতে মাছ শিকারের অধিকার উন্মুক্ত করে দিতে সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয়। অকাল বন্যায় বিপর্যস্ত কৃষকদের কৃষিঋণ মওকুফ করা এবং আগামী ফসল না উঠা পর্যন্ত চাল

কমরেড আহসান হাবিব লাবলু
ও নগদ অর্থ সহায়তা চালু রাখার দাবি জানানো হয়। প্রস্তাবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু এবং দলীয় প্রভাবমুক্ত করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। রাজনৈতিক প্রস্তাবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দ্বি-দলীয় ধারার বাইরে বাম-গণতান্ত্রিক দলসমূহের জোট গঠন করে নির্বাচনে অংশগ্রহণের কথা পুনর্ব্যক্ত করা হয়। কেন্দ্রীয় কমিটির দায়িত্ব পুনর্বণ্টন: কেন্দ্রীয়

কমরেড রুহিন হোসেন প্রিন্স
কমিটির সভায় বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদকে অসুস্থতাজণিত কারণে তাঁর অনুরোধের প্রেক্ষিতে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে প্রেসিডিয়াম সদস্য করা হয় এবং প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড শাহ আলমকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ করা হয়। প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড সাজ্জাদ জহির চন্দনকে সহকারী সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করা হয়। কেন্দ্রীয় কমিটির

কমরেড জলি তালুকদার
সদস্য কমরেড আবদুল্লাহ ক্বাফী রতনকে প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে মনোনীত করা হয়। কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড আহসান হাবিব লাবলু, কমরেড রুহিন হোসেন প্রিন্স, কমরেড জলি তালুকদারকে কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক মনোনীত করা হয়। সিলেট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড আনোয়ার হোসেন সুমন ও খুলনা জেলার কমরেড অরুণা চৌধুরীকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন

Login to comment..