বন্যা মোকাবেলায় আগাম প্রস্তুতি নিতে সরকারের প্রতি সিপিবি’র আহ্বান সরকারি হাসপাতালে করোনা পরীক্ষায় ফি চালু করায় সিপিবি’র ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ

Posted: 30 জুন, 2020

আজ ৩০ জুন সিপিবি কোভিড রেসপন্স টিমের অনলাইন সভা পার্টির সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক কমরেড মোহম্মদ শাহ আলম, সহকারী সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাজ্জাদ জহির চন্দন, প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড লক্ষ্মী চক্রবর্তী, রফিকুজ্জামান লায়েক, মিহির ঘোষ, আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, সম্পাদক কমরেড আহসান হাবীব লাবলু, রুহিন হোসেন প্রিন্স, কোষাধ্যক্ষ মাহবুব আলম ও সদস্য কমরেড ডা. ফজলুর রহমান। বন্যা মোকাবেলায় আগাম প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য সিপিবি’র আহ্বান করোনা মহাবিপর্যয়ের মধ্যেই সারাদেশে বন্যার পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে। দেশের বড় বড় নদীতে পনি বৃদ্ধি পাচ্ছে। কোনো কোনো নদী বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সুনামগঞ্জ শহরে পানি ঢুকে পড়েছে। বিপর্যস্ত মানুষের উপর নতুন বিপর্যয় ধেয়ে আসছে। সিপিবি’র আজকের সভায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয় এবং বন্যাপ্রবণ এলাকাসমূহে বন্যাকালীন বিপর্যয় মোকাবেলার জন্য আগাম প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। নেতৃবৃন্দ বন্যাগ্রস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রস্তুতি নিতে দলীয় নেতা কর্মীদের আহ্বান জানান। সরকারি হাসপাতালে করোনা পরীক্ষায় ফি চালু করায় সিপিবি’র ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ সভায় অন্য এক প্রস্তাবে সরকারি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসায় ফি নির্ধারণের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানানো হয়। সিপিবি নেতৃবৃন্দ বলেন, জনগণের করোনা পরীক্ষার দায়িত্ব সরকারের। সরকার এ দায়িত্ব থেকে নিজেকে বিযুক্ত করতে পারে না। করোনা পরীক্ষা সর্বজনীন করা না গেলে এর ভয়াবহ পরিণতি জাতিকে প্রত্যক্ষ করতে হবে। জাতিকে অতিমারির বিপর্যয় থেকে রক্ষা করা সরকারের কর্তব্য। নেতৃবৃন্দ বিনা ফি’তে সারা দেশে সম্ভাব্য আক্রান্ত সকল মানুষের করোনা সনাক্তকরণ পরীক্ষা নিশ্চিত করার দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ প্রতিটি জেলায় অন্ততঃ একটি পিসিআর ল্যাব প্রতিষ্ঠা এবং প্রতিটি উপজেলায় নমুনা সংগ্রহ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে পরীক্ষা ফি প্রত্যাহার না করলে সরকারের এই গণবিরোধী সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।