ভেনিজুয়েলা’র নির্বাচিত মাদুরো সরকারকে সামরিক ক্যু’র মাধ্যমে উৎখাতে লিপ্ত দেশের অভ্যন্তরে তথাকথিত বিরোধী গোষ্ঠী এবং তাদের মদতদাতা মার্কিন সাম্রাজ‌্যবাদ ও পশ্চিমা শক্তির বিরুদ্ধে বাংলাদেশসহ বিশ্ববাসীকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান - বাম গণতান্ত্রিক জোট

Posted: 03 মে, 2019

ভেনিজুয়েলা’র নির্বাচিত মাদুরো সরকারকে সামরিক ক্যু’র মাধ্যমে উৎখাতে লিপ্ত দেশের অভ্যন্তরে তথাকথিত বিরোধী গোষ্ঠী এবং তাদের মদতদাতা মার্কিন সাম্রাজ‌্যবাদ ও পশ্চিমা শক্তির বিরুদ্ধে বাংলাদেশসহ বিশ্ববাসিকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে আজ ৩ মে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও সকাল ১১.৩০ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাম গণতান্ত্রিক জোট সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করে। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাম জোটের সমন্বয়ক ও বাসদ নেতা কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাম জোট নেতা সিপিবি সাধারণ সম্পাদক কমরেড মোঃ শাহ আলম, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হক, বাসদ (মার্কসবাদী) নেতা কমরেড মানস নন্দী, বাংলাদেশ ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ নেতা কমরেড নজরুল ইসলাম। সভা পরিচালনা করেন বাসদ নেতা ও বাম গণতান্ত্রিক জোট ঢাকা মহানগর শাখার সমন্বয়ক খালেকুজ্জামান লিপন। সমাবেশে বক্তাগণ স্বাধীনত সার্বভৌম ভেনিজুয়েলায় গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকার থাকা অবস্থায় সেখানে বিরোধী নেতা নিজেকে রাষ্ট্রপতি ঘোষণা দেয়া এবং সামরিক বাহিনীকে ক্যু’র মাধ্যমে মাদুরো সরকারকে উৎখাত করার প্রকাশ্য ঘোষণা দেওয়ার পরও জাতিসংঘের ভূমিকার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। বক্তাগণ আরোও বলেন, ভেনিজুয়েলা পৃথিবীর ১নং অপরিশোধিত তেল রিজার্ভের ও ৫ম বৃহৎ তেল উৎপাদনকারি দেশ। মার্কিন সাম্রাজ‌্যবাদ ও পশ্চিমা শক্তি ভেনিজুয়েলার তেলসহ খনিজ সম্পদ দখল করতে চায়। কিন্ত মাদুরো ও তাদের প্রয়াত নেতা হুগো সাভেজ সরকার তেলসহ সকল জাতীয় সম্পদের উপর দেশের মানুষের শতভাগ মালিকানা নিশ্চিত করেছে। ফলে লুটপাটে ব্যর্থ হয়ে ট্রাম্প প্রশাসন ভেনিজুয়েলাকে অবরোধ ও নির্বাচিত সরকারকে উৎখাতের চক্রান্তকারী তথাকথিত বিরোধী শক্তিকে মদদ দিচ্ছে। ট্রাম্প প্রশাসন ইয়েমেনে আগ্রাসী সৌদী সরকার, ফিলিস্তিনে আগ্রাসী ইসরাইলি সরকারকে মদদ দিচ্ছে এবং ইরাক, লিবিয়া, সিরিয়া ও আফগানিস্তানে হামলা করাসহ গোটা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে পদদলিত করছে তাদের হীন স্বার্থে। বক্তাগণ বলেন, আমরা একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ হিসেব ভেনিজুয়েলা সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মার্কিনীদের এই আগ্রাসন মেনে নিতে পারি না। আমাদের সংবিধান এই অবস্থানের বিপক্ষে থাকলেও বর্তমান সরকার ভেনিজুয়ালা সরকারকে সমর্থন করছে না বা তাদের পাশে দাড়াচ্ছে না। বক্তাগণ সরকারের এই নতজানু নীতিরও তীব্র নিন্দা জানান। বক্তাগণ মার্কিন সাম্রাজ‌্যবাদ ও পশ্চিমা শাসক গোষ্ঠির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রত মাদুরো সরকার ও তার দেশের জনগণের প্রতি বাংলাদেশের শান্তিকামি ও গণতন্ত্রমনা মানুষের পক্ষ থেকে সংহতি প্রকাশ করেন। একই সাথে সাম্রাজ্যবাদী চক্রান্ত মোকাবেলা করে সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। বক্তাগণ ভেনিজুয়ালাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ ও পশ্চিমা শাসকদের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশসহ বিশ্বের শান্তিকামি ও গণতন্ত্রমনা মানুষকে এগিয়ে আসার এবং সাম্রাজ‌্যবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।