দক্ষিণ এশিয়ার ছাত্র-যুবরা সাম্রাজ্যবাদ, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম গড়ে তুলবে -সিপিবি’র সঙ্গে সাক্ষাতে সফররত বিভিন্ন দেশের ছাত্র-যুব নেতৃবৃন্দ

Posted: 09 ফেব্রুয়ারী, 2019

আজ ৯ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টায় ঢাকায় সফররত বিশ্ব গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ মুক্তিভবনের মৈত্রী মিলনায়তনে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) নেতৃবৃন্দের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, সিপিবি’র আন্তর্জাতিক বিভাগের প্রধান হাসান তারিক চৌধুরী, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোহাম্মদ কিবরিয়া। বিশ্ব গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের সহ-সভাপতি কল্পনা মধুভাষিণীর নেতৃত্বে এই প্রতিনিধি দলে আরো ছিলেন বিশ্ব গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের কো-অর্ডিনেটর এবং ইয়ুথ ফেডারেশন নেপালের সভাপতি সুন্দার ভাশাল, অল ইন্ডিয়া ইয়ুথ ফেডারেশনের নেতা গিরিষ আনন্দ পান্ডে, থিরুমালাই রমন, ডেমোক্রেটিক ইয়ুথ ফেডারেশন ইন্ডিয়ার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটির সাধারণ সম্পাদক সায়নদীপ মিত্র, অল নেপাল ন্যাশনাল ফ্রি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সভাপতি আরতী লামা, অল ইন্ডিয়া স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অংকুশ গার্গ, ফ্রিডম পার্টি ইয়ুথ ফেডারেশন শ্রীলঙ্কার নেতা আলাউদ্দিন মোহাম্মদ ফাহিম, কমিউনিস্ট ইয়ুথ ফেডারেশন অব নেপালের নেতা দীনেথ কাবেন্দু, সোসালিস্ট ইয়ুথ ইউনিয়ন শ্রীলঙ্কার নেতা গুনাসেকারা রোহিতা, সোসালিস্ট স্টুডেন্টস ইউনিয়ন শ্রীলঙ্কার নেতা ইহালা চন্দ্রালা হরিষচন্দ্র, এমইপি শ্রীলঙ্কার নেতা দুশানান্ত মহেশপ্রিয়া, লাওস ইয়ুথ ইউনিয়ন নেতা সোমকিত্ত কিংজাদা, ইয়ং কমিউনিস্ট লীগ নেপালের নেতা রাম প্রসাদ সুপক্তা, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের সভাপতি হাসান হাফিজুর রহমান সোহেল এবং সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আদনান রিয়াদ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি জিএম জিলানী শুভ এবং সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সভায় দক্ষিণ এশিয়ার ছাত্র যুব আন্দোলনের সাম্প্রতিক নানা অভিজ্ঞতা নিয়ে আলোচনা হয়, বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিষয়েও মতবিনিময় করা হয়। ঢাকায় সফররত বিভিন্ন দেশের যুব নেতারা বলেন, বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশে ধর্মীয় জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ চরম আকার ধারণ করেছে। সাম্রাজ্যবাদ এই অপশক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই অঞ্চলে তার আধিপত্য জোরদার করছে। তাদের এই চক্রান্তে এই অঞ্চলের ছাত্র-যুবরা মারাত্মকভাবে আক্রান্ত হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে তরুণ সমাজের সোনালী ভবিষ্যৎ। সফররত ছাত্র-যুব নেতাদের স্বাগত জানিয়ে সিপিবি’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, দক্ষিণ এশিয়া আজ এক চরম রাজনৈতিক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। একদিকে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ ভারতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তার প্রভাব বলয় বৃদ্দির কাজে নিয়োজিত। একইসঙ্গে সাম্রাজ্যবাদ চীনকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলার নীতি নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। তারা এ অঞ্চলের বাম-প্রগতিশীল রাজনৈতিক আন্দোলনকে স্তব্ধ করে দিতে চায়। এজন্য তারা ভোট ডাকাতি ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে নিজেদের পছন্দসই শাসকদের ক্ষমতায় বসাচ্ছে। বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি এই চক্রান্তের বিরুদ্ধে বিরামহীনভাবে লড়ছে। সিপিবি আশা করে, এই অঞ্চলের প্রগতিশীল ছাত্র-যুবরা আগামী দিনে সাম্রাজ্যবাদ, জঙ্গীবাদ ও অগণতান্ত্রিক শক্তির বিরুদ্ধে জোরদার আন্দোলন গড়ে তুলবে। সভায় ছাত্র-যুব নেতৃবৃন্দ সাম্রাজ্যবাদ এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ছাত্র-যুবদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলে সাম্রাজ্যবাদ এবং জঙ্গীবাদ মুক্ত এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল গড়ে তোলার আহ্বান জানান। সভা শেষে নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় কার্যালয় ঘুরে দেখেন।