বর্ষীয়ান কমিউনিস্ট নেতা কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডল আর নেই

Posted: 02 অক্টোবর, 2017

ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক, মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানী, এ দেশের শ্রমিক আন্দোলনের কিংবদন্তী, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা, বর্ষীয়ান কমিউনিস্ট নেতা কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডল আর নেই। আজ ২ অক্টোবর ভোর ৬টায় রাজধানীর হেলথ অ্যান্ড হোপ হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৭ বছর। দীর্ঘদিন তিনি বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় ভুগছিলেন। সর্বশেষ তিনি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হন। চিকিৎসার উদ্দেশ্যে তাঁকে গত ২৮ সেপ্টেম্বর গ্রামের বাড়ি পাবনার ঈশ্বরদী থেকে ঢাকায় নিয়ে এসে হেলথ অ্যান্ড হোপ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে ১ অক্টোবর বিকেলে তাঁকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। তিনি ডা. এমএইচ চৌধুরী লেলিনের চিকিৎসাধীন ছিলেন। সিপিবির শোক কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডলের মৃত্যুতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়েছে। আজ ২ অক্টোবর দুপুরে মুক্তিভবনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সিপিবি’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সিপিবি’র প্রেসিডিয়ামের বিশেষ সভায় গৃহীত শোক প্রস্তাবে বলা হয়, কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডল ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে পাকিস্তানের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলন, মহান মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। এ দেশের শ্রমিক আন্দোলনে তাঁর ভূমিকা কিংবদন্তীর। এ দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। জেল-জুলুম-হুলিয়া কোনো কিছুকেই তিনি পরোয়া করেননি। তাঁর মৃত্যুতে কমিউনিস্ট আন্দোলনের এক সূর্য অস্তমিত হলো। শোক প্রস্তাবে আরও বলা হয়, আজীবন বিপ্লবী কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডল তরুণদের স্বপ্নের নায়ক। তিনি হাজার হাজার তরুণকে কমিউনিস্ট আদর্শ ও আন্দোলনে উদ্বুদ্ধ করেছেন। সহজ-সরল-সাবলীল অথচ অনলবর্ষী বক্তৃতায় তিনি সহজেই জনতাকে আকৃষ্ট করতেন। ৯০-এর দশকে কমিউনিস্ট আন্দোলন তীব্রভাবে আক্রান্ত হলে, তিনি আদর্শের ঝান্ডা নিয়ে বিলোপবাদীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান। দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে শ্রমজীবী-মেহনতি মানুষকে সংগঠিত করার কাজে তিনি আত্মনিয়োগ করেছিলেন। সিপিবি’র শোক প্রস্তাবে আরও বলা হয়, কমরেড জসিম মণ্ডলের মৃত্যুতে এ দেশের শ্রমিক শ্রেণি ও কমিউনিস্ট আন্দোলন এক মহান নেতা ও অভিভাবককে হারাল। তাঁর মৃত্যুতে দেশের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। তাঁর দেখানো আদর্শের পথ ধরেই শ্রমিক শ্রেণি বিপ্লবী আন্দোলনকে এগিয়ে নেবে। কর্মসূচি কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডলের মৃত্যুতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) আগামীকাল ৩ অক্টোবর সারাদেশে শোকদিবস পালন করবে। সারাদেশের সিপিবি অফিসগুলোতে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হবে এবং নেতা-কর্মীরা কালো ব্যাজ ধারণ করবেন। ইতিমধ্যে পার্টি অফিসে শোকবই খোলা হয়েছে। শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কমরেড জসিম উদ্দিন মণ্ডলের মরদেহ বারডেম-এর হিমঘর থেকে আগামীকাল ৩ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত পুরানা পল্টনের সিপিবির কেন্দ্রীয় অফিস মুক্তিভবনের সামনে এবং সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২.৩০টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হবে। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে জানাজার পর তাঁর মরদেহ কুষ্টিয়ায় নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তাঁর মরদেহ ঈশ্বরদীতে নিয়ে যাওয়া হবে। আগামী ৪ অক্টোবর সকালে শ্রদ্ধা নিবেদন ও জানাজার পর ঈশ্বরদীতে তাঁর দাফন হবে।