বিশ্বজিৎ হত্যাকাণ্ডের ন্যায়বিচার প্রাপ্তি সরকারকেই নিশ্চিত করতে হবে সিপিবি-বাসদ

Posted: 08 আগস্ট, 2017

বিশ্বজিৎ দাস হত্যাকাণ্ডে নিম্ন আদালতে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আট আসামির দুইজনের মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে, চার জনের মৃত্যুদণ্ড পরিবর্তন করে যাবজ্জীবন, অপর দুইজনকে খালাস প্রদান এবং তের যাবজ্জীবন প্রাপ্তদের মধ্যে যে দুইজন আপিল করেছে তাদেরকে হাইকোর্ট খালাস প্রদান করায় বিস্ময় ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড মো. শাহ আলম ও বাসদের সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান। নেতৃবৃন্দ আজ এক বিবৃতিতে বলেন, উচ্চ আদালতের এ রায়ে দেশবাসী ক্ষুব্ধ ও হতাশ। নেতৃবৃন্দ বলেন, আদালত নিজেই সন্দেহ প্রকাশ করেছে এ হত্যাকাণ্ডে পুলিশ কর্তৃক প্রস্তুতকৃত লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন এবং চিকিৎসক কর্তৃক প্রদত্ত ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন অসামঞ্জস্যপূর্ণ। দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ ও চিকিৎসক দায়িত্বে অবহেলা ও পেশাগত অসদাচরণ করেছেন কিনা উচ্চ আদালত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে যথোপযুক্ত কর্তৃপক্ষকে। উচ্চ আদালতের পর্যবেক্ষণের প্রতি দিক নির্দেশ করে নেতৃবৃন্দ দায়িত্ব প্রাপ্ত পুলিশ ও চিকিৎসকের ইচ্ছাকৃত ত্রুটি আমলে নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ বলেন, আইনী তর্ক-বিতর্ক ও সাক্ষী-প্রমাণ প্রদর্শনের মাধ্যমে সরকারি কৌসুলীদের আদালতে বিষয়টি প্রমাণে ব্যর্থতাও জনগণের মনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে এটি উদ্দেশ্য প্রণোদিত কিনা। নেতৃবৃন্দ বিশ্বজিৎ হত্যকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার এবং তার পরিবারের ন্যায় বিচার প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে উচ্চ আদালতের এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।