কমরেড লালাসহ ৪ জনের রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে সিপিবি-বাসদ

Posted: 09 জুলাই, 2017

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক কমরেড মো. শাহ আলম ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ-এর সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান এক বিবৃতিতে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফয়জুল হাকিম লালা, কমরেড মজিবর রহমান, কমরেড আবুল কালাম আজাদ ও কমরেড ডা. আবদুল হাকিমের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাষ্ট্রদোহ মামলা দায়ের করার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, জনগণের আন্দোলন দমন করতে সরকার এখন মত প্রকাশ এবং কথা বলার অধিকার কেড়ে নিতে চাইছে। সরকার দমন-পীড়নের যে পথ বেছে নিয়েছে, তার ধারাবাহিকতায়ই কমরেড লালাসহ ৪ জন প্রগতিশীল রাজনীতিকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দায়ের করা হয়েছে। কিছুদিন আগেই হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে ছাত্র ইউনিয়নসহ প্রগতিশীল আন্দোলনের নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এসব পদক্ষেপ স্বৈরতান্ত্রিক ও ফ্যাসিবাদী প্রবণতার কথাই মনে করিয়ে দেয়। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, কারও রাজনৈতিক বিশ্বাস ও বক্তব্যের সঙ্গে অন্য কেউ একমত না-ও হতে পারেন। কিন্তু মত প্রকাশের স্বাধীনতার ওপর হামলা কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না। আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারের এসব হয়রানিমূলক পদক্ষেপের জবাব দিতে হবে। বিবৃতিতে সিপিবি-বাসদ নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে কমরেড লালাসহ ৪ জন প্রগতিশীল রাজনীতিকের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।