নির্বাচন কমিশনের জন্য নাম জমা দেবে না সিপিবি

Posted: 29 জানুয়ারী, 2017

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য প্রস্তাব প্রেরণ সম্পর্কে গত ২৮ জানুয়ারি প্রেরিত চিঠির আজ ২৯ জানুয়ারি জবাব দিয়েছে সিপিবি। সার্বিক বিবেচনায় নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য অনুসন্ধান কমিটির কাছে সিপিবি কোনো নাম জমা দেবে না বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। চিঠিটি নিম্নরূপ: ২৯ জানুয়ারি ২০১৭ প্রতি মো. নাজমুল হুদা সিদ্দিকী উপ-সচিব, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সরকার গঠন ও রাষ্ট্রাচার অধিশাখা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। বিষয় : প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য প্রস্তাব প্রেরণ প্রসঙ্গে। জনাব প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য প্রস্তাব প্রেরণ সম্পর্কে গত ২৮ জানুয়ারি প্রেরিত আপনার স্বাক্ষরিত একটি চিঠি (নম্বর : ০৪.০০.০০০০.৪২১.৫৩.০৪৪.১৭.৩৪) পেয়েছি। চিঠিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য অনুসন্ধান কমিটির প্রথম সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রাজনৈতিক দল হিসেবে আমাদের কাছে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার মনোনয়েন লক্ষ্যে সংক্ষিপ্ত জীবনবৃত্তান্তসহ অনধিক ০৫ (পাঁচ)টি নাম আগামী ৩১ জানুয়ারি ২০১৭-এর মধ্যে প্রেরণ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এ সম্পর্কে আমরা আমাদের অবস্থান তুলে ধরছি। আমরা মনে করি, নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে নাম আহ্বান করা কাক্সিক্ষত নয় বলে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়াটিকে আইনগত কাঠামোর আওতায় আনার বিষয়টি অপরিহার্য। এ পদক্ষেপ গ্রহণের বদলের রাজনৈতিক দল সমূহের কাছ থেকে নাম চাওয়ায় নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে বিতর্ক আরো বাড়বে বলে আমরা আশংকা করি। দক্ষ, নিরপেক্ষ, গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠনের উদ্দেশে অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে। এমন ব্যক্তিদের খুঁজে বের করা অনুসন্ধান কমিটির দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। নাম জমা দেওয়া রাজনৈতিক দলের দায়িত্ব নয়। রাজনৈতিক দলগুলো নাম জমা দিলে, সেসব নাম নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠতে পারে ও বিতর্ক আরও বাড়তে পারে। এর ফলে নির্বাচন কমিশনের জন্য দক্ষ, নিরপেক্ষ, গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। আমরা বরং মনে করি যে, কোনো রাজনৈতিক দল যদি কোনো নাম সুপারিশ করে, সে ধরনের নাম ‘ডিসকোয়ালিফাই’ করা উচিত। মহামান্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎকালে আমরা এসব বিষয়ে সতর্ক থাকার কথা বলেছিলাম। সার্বিক বিবেচনায় নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য অনুসন্ধান কমিটির কাছে সিপিবি কোনো নাম জমা দেবে না। উপরন্তু আমরা রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে নাম নেয়ার প্রক্রিয়া থেকে অনুসন্ধান কমিটিকে সরে আসার জন্য অনুরোধ জানাই। একইসঙ্গে প্রশ্ন বা বিতর্ক তৈরি হতে পারে, এমন উদ্যোগের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকারও অনুরোধ জানাই। অভিনন্দনসহ সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ সাধারণ সম্পাদক, কেন্দ্রীয় কমিটি বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)