Register or Login
দীপন হত্যার প্রতিবাদে সিপিবি-বাসদ-এর বিক্ষোভ-সমাবেশে সেলিম আত্মরক্ষার জন্য সর্বত্র প্রতিরোধ ব্রিগেড গড়ে তুলুন
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, ধারাবাহিকভাবে একের পর এক হত্যাকান্ড সংগঠিত হচ্ছে। বিদেশি হত্যা, তাজিয়া মিছিলে হামলার পর গতকালের হামলা ও হত্যাকান্ড অপদার্থ সরকারের ব্যর্থতাকে আরো স্পষ্ট করেছে। সরকার ও প্রশাসনের ওপর নির্ভর না করে সারাদেশে প্রতিবাদের ঝড় তুলতে হবে। জনগণকেই সংগঠিত হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। আত্মরক্ষার ব্যবস্থা জনগণকেই করতে হবে। আত্মরক্ষার জন্য পাড়া-মহল্লা, স্কুল-কলেজ সর্বত্র প্রতিরোধ ব্রিগেড গড়ে তুলতে হবে। প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যাকান্ড এবং আরো ৩ জন প্রকাশক-লেখকের ওপর হামলার প্রতিবাদে আজ ১ নভেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ-এর বিক্ষোভ-সমাবেশে কমরেড সেলিম এসব কথা বলেন। সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বাসদ-এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ। এসময় বাসদ-এর সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামানসহ সিপিবি-বাসদ-এর অন্য কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশে কমরেড সেলিম আরো বলেন, সরকারের ভূমিকা এখন প্রচন্ডভাবে প্রশ্নবিদ্ধ। জনগণের নিরাপত্তা বিধান করা সরকারের দায়িত্ব। কিন্তু দেশে এমন এক অবস্থা তৈরি হয়েছে যে, ক্ষমতায় যেতে এখন আর ভোটের দরকার হচ্ছে না। জনগণের নিরাপত্তা বিধানে জনসমর্থনহীন সরকারের কোনো দায় নেই। একের পর এক হত্যাকান্ড ঘটলেও, সরকার কোনো হত্যাকান্ডেরই কূল-কিনারা করতে পারছে না। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মন্তব্যকারীদের ধরতে সরকারের সময় লাগে না। আইসিটি আইনে ব্লগারদের গ্রেপ্তার করতে পারলেও, সরকার খুনীদের ধরছে না। জনগণের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থতা এবং খুনীদের ধরতে না পারার জন্য গোটা সরকারকেই দায়ী। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আর এক মুহূর্তও দায়িত্বে থাকার সুযোগ নেই। সমাবেশে কমরেড ফিরোজ বলেন, দেশ এখন ষড়যন্ত্রের লীলাভূমিতে পরিণত হয়েছে। নানা দিক থেকে ষড়যন্ত্র চলছে। জনগণের কথা বলার সুযোগ ক্রমেই সংকুচিত হচ্ছে। গণতন্ত্রহীনতা ষড়যন্ত্রকে বাড়িয়ে দেয়। যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচানোর জন্য নানা ষড়যন্ত্র চলছে। দেশে ভয়ঙ্কর ও আতঙ্কের পরিস্থিতি তৈরি করে যারা নিজেদের সংকীর্ণ স্বার্থ হাসিল করতে চায়, তাদের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ঢাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিপিবি-বাসদ-এর নেতা-কর্মীরা শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভ-সমাবেশে যোগ দেন। বার্তা প্রেরক চন্দন সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় দপ্তর বিভাগ

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2019. Beta