Register or Login
আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সিপিবি’র প্রার্থীরা ‘কাস্তে’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ এক বিবৃতিতে বলেছেন যে, দেশের বিভিন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সিপিবি’র প্রার্থীরা ‘কাস্তে’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন যে, ইতোমধ্যে এসব নির্বাচনের সম্ভাব্য সময়ও জানানো হয়েছে। ডিসেম্বরে পৌরসভা নির্বাচন ও মার্চে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হবে বলে বলা হয়েছে। এসব নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নিয়ে অংশগ্রহণের বিধানও করা হচ্ছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশে নির্বাচন-ব্যবস্থাকে জিয়া ও এরশাদের শাসনকালের মতো পুনরায় কার্যত এক ধরনের প্রহসনে পরিণত করা হয়েছে। টাকার খেলা, পেশীশক্তি ও হোন্ডা-গুন্ডার দাপট, প্রশাসনিক কারসাজি, সাম্প্রদায়িক ধুম্রজাল ইত্যাদি অবাধ-নিরপেক্ষ নির্বাচনের পথে প্রধান অন্তরায়। আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনী সংস্কারের পক্ষে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে জনমত সংগঠিত করতে হবে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, দেশের সংবিধানে গণতান্ত্রিক বিকেন্দ্রীকরণ এবং সেই লক্ষ্যে প্রতিটি স্তরের স্থানীয় সরকারকে নিজ-নিজ এক্তিয়ারের মধ্যে পরিপূর্ণ স্বাধীনতা প্রদান ও পূর্ণ ক্ষমতায়নের নির্দেশনা আছে। কিন্তু স্থানীয় সরকার-ব্যবস্থাকে মন্ত্রণালয় ও এম.পি. দ্বারা নিয়ন্ত্রিত করার পথ অনুসরণ করা হচ্ছে। আসন্ন স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা ইত্যাদি সংস্থার প্রকৃত ক্ষমতায়নের দাবিটি সোচ্চার করা এবং তার পক্ষে জনগণের ম্যান্ডেট গ্রহণে প্রয়াসী হতে হবে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, স্থানীয় সরকারের কাজে নানা অন্তরায় থাকা সত্ত্বেও, যে সবের মাধ্যমে নানা সৃজনশীল স্থানীয় উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা সম্ভব। জনসেবামূলক নানা কর্মকান্ড পরিচালনা করা সম্ভব। জনগণকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা-ধারায় সচেতন ও শিক্ষিত করে তোলা সম্ভব। কিন্তু দূর্নীতি, অনাচার, প্রতিক্রিয়াশীল ও সাম্প্রদায়িক মনোভাবাপন্ন ব্যক্তিরা স্থানীয় সরকার সংস্থায় নির্বাচিত হলে, এসব কাজ সম্পন্ন করা যায় না। এজন্য আসন্ন স্থানীয় সরকার নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগরিত, স্থানীয় সমস্যাবলী সম্পর্কে ওয়াকিবহাল, সৎ, দেশপ্রেমিক, প্রগতিবাদী ব্যক্তিদের বিজয়ী করা একান্ত আবশ্যক। সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এসব কর্তব্যকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনসমূহে ‘কাস্তে’ প্রতীক নিয়ে সিপিবি’র প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। সিপিবি’র প্রার্থীতালিকায় পার্টির সদস্য, কর্মী, সমর্থক ছাড়াও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগরিত প্রগতিমনা, অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক, সৎ, জনদরদী ব্যক্তিরাও অন্তর্ভূক্ত থাকবেন। স্থানীয় সরকারকে কেন্দ্র করে আসন্ন নির্বাচনী সংগ্রামে সর্বশক্তি নিয়ে অবতীর্ণ হওয়ার জন্য পার্টির সব স্তরের কমিটি ও সদস্যবৃন্দকে দ্রুত প্রস্তুতি গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। বার্তা প্রেরক চন্দন সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় দপ্তর বিভাগ

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2019. Beta