Register or Login
সিপিবি-বাসদ, গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার সমাবেশে নেতৃবৃন্দ প্রস্তাবিত বাজেট প্রতারণা, লুটপাট ও করের বোঝা বাড়ানোর ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠ
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
প্রস্তাবিত গণবিরোধী বাজেট ও গ্যাসের বর্ধিত দাম প্রত্যাহার এবং চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম কমানোর দাবিতে সিপিবি-বাসদ জোট ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা আয়োজিত বিক্ষোভ-সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, ঋণনির্ভর, আমলাতান্ত্রিক, লুটপাটের স্বার্থে প্রণীত বাজেটের মাধ্যমে সরকার জনগণের ওপর নতুন বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে। ভ্যাট, কর আরোপ করে জনগণকে নিংড়ে নিয়ে শোষণ এবং লুটপাট নির্বিঘ্ন করার ধারাবাহিকতা রক্ষা করা হয়েছে এই বাজেটে। প্রস্তাবিত বাজেট প্রতারণা, লুটপাট ও করের বোঝা বাড়ানোর ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠ। দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয়ভাবে আজ ৫ জুন বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সাজ্জাদ জহির চন্দনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন সাইফুল হক, রাজেকুজ্জামান রতন, শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, জোনায়েদ সাকি, অধ্যাপক আবদুস সাত্তার, অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন, শহীদুল ইসলাম সবুজ, হামিদুল হক, জুলফিকার আলী প্রমুখ। প্রস্তাবিত বাজেট প্রত্যাখ্যান করে সমাবেশে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, কৃষি, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ জনগণের জন্য বরাদ্দ আনুপাতিক হারে কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। ব্যাংক লুটের ফলে খালি হয়ে যাওয়া তহবিল পুনর্ভরন করার জন্য বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে, খেলাপি ঋণ অবলোপন করা হয়েছে, গার্মেন্টস মালিকদের জন্য কর্পোরেট ট্যাক্স কমানো হয়েছে, সামরিক ও আমলাতন্ত্রের জন্য বরাদ্দ বেড়েছে। জিডিপি বৃদ্ধির কথা বললেও কর্মসংস্থান বৃদ্ধির কোনো পদক্ষেপ এই বাজেটে নেই। সরকারের যেমন রাজনৈতিক জবাবদিহিতা নেই, বাজেট প্রণয়নেও তেমনি জবাবদিহিতার তোয়াক্কা করে নাই। এই বাজেট প্রণয়ন অগণতান্ত্রিক। বাগাড়ম্বরের আড়ালে লুণ্ঠনকে বৈধতা দেওয়ার এই বাজেট বাতিল করে গণমুখী বাজেট প্রণয়ন করতে হবে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ধনিক শ্রেণির সরকার সরকার সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণ করেছে। শুধু গণবিরোধী বাজেট প্রণয়নই নয়, সরকার গ্যাসের দাম আরেক দফা বৃদ্ধি করেছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়েই চলেছে। সরকারের এসব গণবিরোধী পদক্ষেপ ও তৎপরতা গরিব মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষকে দুঃসহ যন্ত্রণার মধ্যে ফেলেছে। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ রাঙামাটিতে আদিবাসীদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ, আদিবাসীদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানান। নেতৃবৃন্দ সরকারের গণবিরোধী পদক্ষেপ ও তৎপরতার বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলতে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। সমাবেশ শেষে সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার একটি বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2017. Beta