Register or Login
সাম্প্রদায়িক শক্তির কাছে সরকারের নতিস্বীকার রুখে দাঁড়ান -সিপিবি-বাসদ
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
রাতের আঁধারে হাইকোর্টের সামনে স্থাপিত ভাস্কার্য অপসারণের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ জানিয়ে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ এবং বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ’র সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান আজ এক যৌথ বিবৃতি প্রদান করেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, হেফাজতে ইসলামের চিঠির প্রেক্ষিতে স্কুল পাঠ্যপুস্তক থেকে প্রগতিশীল ও অমুসলিম লেখকদের লেখা বাদ দেয়া, হেফাজতের চাহিদা অনুযায়ী কওমী মাদ্রাসার সর্বোচ্চ ডিগ্রিকে মাস্টার্স এর সমমর্যাদা প্রদান করা এবং পরবর্তীতে হেফাজতসহ অন্যান্য সাম্প্রদায়িক শক্তির তথাকথিত আন্দোলনের হুমকিতে ভীত হয়ে সরকার হাইকোর্টের সামনে স্থাপিত ভাস্কর্য অপসারণ করেছে যা বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকারের সাম্প্রদায়িক শক্তির কাছে নতি স্বীকারের নিদর্শন। নেতৃবৃন্দ সরকারের এ ধরণের অপকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করে বলেন, ক্ষমতায় টিকে থাকা এবং পুনরায় ক্ষমতায় ফিরে আসার জন্য সমর্থনের আশায় বর্তমান সরকার সাম্প্রদায়িক শক্তির সাথে আপোষের যে পথে গেছে তা আমাদের সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য ভয়ানক বিপর্যয় ডেকে আনছে। নেতৃবৃন্দ সরকারের সাম্প্রদায়িক শক্তির কাছে নতি স্বীকারের যে রাজনীতি তাকে রুখে দিতে জনগণের কাছে আহ্বান জানান। সরকার পুলিশ দিয়ে ঘেরাও করে ভাস্কর্য অপসারণ করেছে। আবার এ অপকাণ্ডের প্রতিবাদ করায় পুলিশ জলকামান, টিয়ারগ্যাস মেরে, লাঠিচার্জ করে প্রতিবাদকারীদের উপর নিপীড়ন চালিয়েছে। পুলিশ বিক্ষোভ মিছিল থেকে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী এবং ঢাকা কলেজ সংসদের সভাপতি মোর্শেদ হালিমসহ ছাত্রনেতাদের গ্রেফতার করে। নেতৃবৃন্দ প্রতিবাদ মিছিলে পুলিশী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে গ্রেফতারকৃত ছাত্রনেতা লিটন নন্দী ও মোর্শেদ হালিমের অবিলম্বে মুক্তি দাবি করেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2017. Beta