Register or Login
আগামীকাল ঢাকায় জাতীয় কমিটির মহাসমাবেশ সফল করার আহ্বান জানিয়েছে সিপিবি
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ এক বিবৃতিতে কয়লাভিত্তিক বামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ সুন্দরবন বিনাশী সকল চুক্তি বাতিল, বিদ্যুৎ-গ্যাস সমস্যা সমাধানে ৭ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি আহূত আগামীকাল ২৬ নভেম্বর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহাসমাবেশ সফল করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বিবৃতিতে সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, নানা বিপর্যয় থেকে সুন্দরবন আমাদের রক্ষা করছে। কিন্তু সুন্দরবনকে ধ্বংস করতে দেশি-বিদেশি দখলদাররা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সরকারের সাম্প্রতিক ভূমিকা সুন্দরবন ধ্বংসকে আরো অনিবার্য করে তুলেছে। জনমত উপেক্ষা করে সুন্দরবন ধ্বংসকারী কাছে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থাপনে সরকার গোয়ার্তুমি করছে। আইন ভঙ্গ করে এবং মিথ্যাচার, প্রতারণা, দমন-পীড়নের মধ্য দিয়ে সরকার জাতীয় স্বার্থবিরোধী রামপাল-ওরিয়ন কয়লাভিত্তিক প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নিচ্ছে। এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে সুন্দরবন ধ্বংস হবে। কোটি কোটি মানুষের জীবন ও সম্পদ অরক্ষিত হয়ে পড়বে, দেশ হারাবে প্রাণ-প্রকৃতির অতুলনীয় সম্পদ। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলনের কর্মীদের বাধা দেওয়া এবং ঢাকায় ২ জন ছাত্র ইউনিয়ন কর্মীকে আটক করা হয়েছে। কিন্তু বাধা দিয়ে, হামলা করে, গ্রেপ্তার করে ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনকে কোনোভাবেই দমন করা যাবে না। সকল বাধা, হামলাকে উপেক্ষা করেই জনগণ সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলনকে সফল করবে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদনের বহু বিকল্প আছে, কিন্তু সুন্দরবনের বিকল্প নেই। সুন্দরবন বাংলাদেশকে রক্ষা করে। সুন্দরবনকে রক্ষা করা আমাদের কর্তব্য। সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলনকে আরো বেগবান করতে হবে। তীব্র আন্দোলনের মধ্য দিয়েই সরকারকে গণবিরোধী রামপাল প্রকল্প থেকে পিছু হটতে বাধ্য করতে হবে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2019. Beta