Register or Login
সৌদি আরব ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সামরিক সহযোগিতার অর্থ হবে ‘খাল কেটে কুমির আনা’
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ আজ এক বিবৃতিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতিতে এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে সম্প্রতি অতি বিপজ্জনক নতুন কিছু উপাদান ও প্রবণতার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং একই সঙ্গে এসবের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন যে, জনগণকে অবহিত না করে এবং জাতীয় সংসদে আলোচনা না করে সরকার ইতিমধ্যে সৌদি আরবের সঙ্গে সামরিক জোটে সামিল হয়েছে। গতকাল ঢাকায় সফররত সৌদি আরবের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আব্দুল্লাহ আল আইশের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর আলোচনায় সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের সামরিক সহযোগিতা প্রসারিত করার বিষয়ে কথা-বার্তা হয়েছে বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এদিকে, আগামী ২৯ আগস্ট মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি ঢাকা সফরে আসছেন। তার ঢাকা সফরকালে বাংলাদেশ-মার্কিন সামরিক সম্পর্ককে উন্নত করার বিষয়সহ গণতন্ত্র ও সব ধরনের বিষয় নিয়ে কথাবার্তা হবে বলে জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সৌদি আরব ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হলো এমন দুটো দেশ, যারা ৭১-এ আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিল এবং ৩০ লক্ষ বাঙালিকে হত্যায় পাকিস্তান হানাদার বাহিনীকে সহযোগিতা করাসহ নানা ঘৃণ্য ভূমিকা পালন করেছিল। শুধু তাই নয়, তারা গত ৪৫ বছর ধরে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকা-ে সম্পৃক্ত থাকাসহ এদেশের বিরুদ্ধে ক্রমাগত ষড়যন্ত্র ও অন্তর্ঘাত চালিয়ে যাচ্ছে। মার্কিন ও সৌদি আরবের সহযোগিতায় বিশ্বে আইএস, আল-কায়দা, তালেবান ইত্যাদি সাম্প্রদায়িক জঙ্গিগোষ্ঠী গড় উঠেছে। এদেশেও জামাত-শিবির, জেএমবি, হরকাতুল জিহাদ, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম প্রভৃতি সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো তাদেরই আর্থিক ও অন্যান্য প্রকারের মদদে বিস্তার লাভ করেছে। এতকিছু সত্ত্বেও সরকারের পক্ষ থেকে সৌদি আরব ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সামরিক সহযোগিতা বৃদ্ধির যে প্রয়াস বর্তমানে নেয়া হচ্ছে, তা ‘খাল কেটে কুমির আনার’ মতো আত্মঘাতি ঘটনায় পর্যবসিত হতে বাধ্য। দেশবাসী এ ধরনের আত্মহননের পদক্ষেপ সহ্য করবে না। তাছাড়া, সৌদি আরব, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কিংবা অন্য কোনো দেশের সঙ্গে সামরিক জোট গঠন কিংবা সামরিক চুক্তিতে আবদ্ধ হওয়ার বিষয়টি দীর্ঘদিনের লালিত এবং সংবিধানে নির্দেশিত ‘জোট নিরপেক্ষতার’ নীতির সুস্পষ্ট বরখেলাপ। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সৌদি আরব, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রভৃতি দেশের সঙ্গে সামরিক সহযোগিতা বৃদ্ধির পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকা এবং আগুন নিয়ে খেলার এ আত্মঘাতি পথ থেকে সরে আসার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2019. Beta