Revolutionary democratic transformation towards socialism

সিপিবি ঢাকা মহানগর উত্তরের নির্বাচিত কমিটি ডা: সাজেদুল হক রুবেল সভাপতি ও লুনা নূর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত


বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিপিবির ঢাকা মহানগর উত্তর-এর প্রথম সম্মেলন ৭ জানুয়ারি ২০২১, মহাখালী পার্টি সেন্টারের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রতিনিধিরা ভোটের মাধ্যমে কমরেড ডা: সাজেদুল হক রুবেলকে সভাপতি ও কমরেড লুনা নূরকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করেন। সম্মেলন থেকে ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয় এবং ১৯ জনকে নির্বাচন করা হয়।

সকাল ১০ টা মহাখালী পার্টি সেন্টারের সামনে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক কমরেড জামাল হায়দার মুকুলের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিপিবি’র সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক জননেতা কমরেড মো: শাহ আলম। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা কমরেড মাহবুব আলম, প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড কাফি রতন প্রমূখ।

কাউন্সিল থেকে নির্বাচিত

নেতৃবৃন্দরা হলেন-কমরেড মোসলেহ উদ্দিন, কমরেড হাসান হাফিজুর রহমান সোহেল, কমরেড সাদেকুর রহমান শামিম, কমরেড মোশাররাফ হোসেন, কমরেড ফেরদৌস আহমেদ উজ্জল, কমরেড জয়নাল আবেদীন, কমরেড আলী কাউসার মামুন, কমরেড রাসেল ইসলাম সুজন, কমরেড রোকেয়া বেগম, কমরেড মোস্তাফিজ সুলতান, কমরেড রাশেদুল হাসান রিপন, কমরেড জহিরুল ইসলাম, কমরেড শরিফুল আনোয়ার সজ্জন, কমরেড মোতালেব হোসেন, কমরেড জাহানারা বেগম, কমরেড আশিকুল ইসলাম জুয়েল,কমরেড মোঃ দিদারুল আলম।

সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জননেতা কমরেড শাহ আলম বলেন, পাকিস্থানের ২২ পরিবারের জায়গায় আজ ৯৪ হাজার লুটেরা পুঁজিপতি সৃষ্টি হয়েছে। দেশে গণতন্ত্রহীনতা, গুম খুন আর লুটপাটের রাজত্ব তৈরি হয়েছে। আমরা যে স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযুক্ত করেছিলাম তাকে ভূলুন্ঠিত করা হয়েছে বারবার। বর্তমান আওয়ামী শাসক

শ্রেণি দেশকে চরম অগণতান্ত্রিক ও স্বৈরাচারী ধারায় পরিচালিত করছে। কমিউনিস্ট পার্টিকে আজকে দায়িত্ব নিতে হবে নতুনভাবে এই দেশটাকে গড়ে তুলতে হলে। সমাজতন্ত্রের লক্ষ্যে বিপ্লবী গণতান্ত্রিক পরিবর্তন সাধনের আর কোনো বিকল্প নেই। সকল কমরেডদের তিনি সাম্রাজ্যবাদ,লুটেরা শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জোরালো লড়াইয়ে নামার আহ্বান জানান।

সম্মেলনের উদ্বোধনী সমাবেশে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে উদীচী বাড্ডা শাখা। সম্মেলনে শোক প্রস্তাব, রিপোর্টসহ সাংগঠনিক রাজনৈতিক বিষয়ে কয়েকটি সেশনে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। বিভিন্ন সেশনে প্রতিনিধিরা মূল্যবান আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। কমিটি গঠন শেষে নর্বনির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করেন। সর্বশেষে কমিউনিস্ট ইন্টারন্যাশনাল গেয়ে সম্মেলনের সমাপনী ঘোষণা করা হয়।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন

Login to comment..