Register or Login
বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাকিস্তানের ঔদ্ধত্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সিপিবি
Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ এক বিবৃতিতে ’৭১-এর মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্তদের বিচার ও শাস্তি প্রদানের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের অপতৎপরতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, পাকিস্তান ’৭১-এ গণহত্যাসহ তার বিধ্বংসী ভূমিকার জন্য বাংলাদেশের কাছে এখনো ক্ষমা চায়নি। উপরন্তু এখন মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারপ্রক্রিয়াকে নানাভাবে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে। বক্তৃতা-বিবৃতি দিয়ে এবং জাতীয় ও প্রাদেশিক পরিষদে প্রস্তাব এনে এই বিচারের বিরুদ্ধে পাকিস্তান তার বাংলাদেশবিরোধী অবস্থান বারে বারে স্পষ্ট করেছে। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাকিস্তানের নগ্ন হস্তক্ষেপ চরম ঔদ্ধত্যপূর্ণ। পাকিস্তানের এই কর্মকান্ড স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থার প্রতি সরাসরি আক্রমণ এবং আন্তর্জাতিক সব রীতিনীতির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। ’৭১-এর মতো আবারও পাকিস্তানের এই বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতার সমুচিত জবাব দিতে হবে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, অপব্যাখ্যা দিয়ে ১৯৭৪ সালের ত্রিপক্ষীয় চুক্তি ভঙ্গ করছে পাকিস্তান। চুক্তি অনুযায়ী, পাকিস্তানের ১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার কথা থাকলেও পাকিস্তান তা করেনি। বাংলাদেশে আটকে পড়া পাকিস্তানিদের ফেরতও নেয়নি। পাকিস্তানের অপতৎপরতার ফলে দুদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক এখন চরম হুমকির মধ্যে পড়েছে। পাকিস্তানের ঔদ্ধত্যপূর্ণ তৎপরতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারকে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করতে হবে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ পাকিস্তানের প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক শক্তি এবং জনগণের প্রতি পাকিস্তান সরকারের ঔদ্ধত্যপূর্ণ তৎপরতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। বিবৃতিতে সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাকিস্তানের পাশাপাশি তুরস্কের ভূমিকা ও অপতৎপরতারও তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। বার্তা প্রেরক চন্দন সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় দপ্তর বিভাগ

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..

© Copyright Communist Party of Bangladesh 2019. Beta